অপসারিত উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে এমপি সমর্থকদের বিক্ষোভ

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:

কিশোরগঞ্জ জেলার পাকুন্দিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম রেনুকে(অপসারিত) সন্ত্রাসী,দুর্নীতিবাজ ও চাঁদাবাজ আখ্যা দিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে পাকুন্দিয়া উপজেলায় বিক্ষোভ-মিছিল হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার দিকে পাকুন্দিয়া-কটিয়াদি আসনের বর্তমান সংসদ সদস্য পুলিশের সাবেক আইজি নূর মোহাম্মদ সমর্থিত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এ বিক্ষোভ-মিছিল করেন। বিক্ষোভ মিছিলটি পাকুন্দিয়া সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন দলীয় কার্যালয় থেকে শুরু হয়ে পৌরবাজার প্রদক্ষিণ শেষে উপজেলা পরিষদে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে গিয়ে শেষ হয়ে সেখানে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। প্রভাষক আতাউর রহমান সোহেল সমাবেশে সঞ্চালনায় ছিলেন।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. হুমায়ুন কবীর,বুরুদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল হুদা রুবেল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক বাবুল আহমেদ, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মিছবাহ উদ্দিন প্রমুখ।

সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে নারান্দী ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, শফিক, পাটুয়াভাঙ্গা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন বাচ্চু, সাবেক পৌর কাউন্সিলর আসাদ মিয়া, চণ্ডিপাশা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন মিলন, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি নাজমুল হক দেওয়ান, চণ্ডিপাশা ইউপি চেয়ারম্যান মো. শামছুদ্দিন, সাবেক চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন,প্রমুখসহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

তারা তাদের বক্তৃতায় বলেন, “বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে রফিকুল ইসলাম রেনুকে উপজেলা চেয়ারম্যানের পদ থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে। তিনি একজন দুর্নীতিবাজ,চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসী। পাকুন্দিয়া উপজেলার সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকদের তাকে চাঁদা দিয়ে ব্যবসা করতে হয়।তার অপকর্মে পাকুন্দিয়াবাসী অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। তাই তার সকল অপকর্মের বিরুদ্ধে তাদের এই বিক্ষোভ মিছিল।