অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতার ঘোষণা দিলো মালয়েশিয়ার সরকার

দুরন্ত ডেস্ক:

মালয়েশিয়ায় অবৈধভাবে অবস্থানরত অভিবাসীদের শর্তসাপেক্ষে বৈধতা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সেই দেশটির সরকার। এই বৈধকরণের প্রক্রিয়া আগামী ১৬ নভেম্বর শুরু হবে।

গতকাল দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিশেষ বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি হামজাহ বিন জায়নুদ্দিন।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দেশটির মানব সম্পদমন্ত্রী দাতুক সেরি এম সারাভানান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, আগামী ১৬ নভেম্বর থেকে শুরু করে ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত চলবে বৈধ করণের প্রক্রিয়া। ইমিগ্রেশন বিভাগ, মালয়েশিয়ার শ্রম বিভাগ এবং অন্যান্য সরকারি সংস্থা এটি বাস্তবায়ন করবে।

রি-হায়ারিং প্রোগ্রাম শেষ হওয়ার পরপরই বাংলাদেশের তৎকালীন হাইকমিশনার শহীদুল ইসলাম বাদ পড়া এবং প্রতারিত অবৈধ কর্মীদের বৈধতা দেওয়ার প্রস্তাব দেন মালয়েশিয়া সরকারের কাছে। এ নিয়ে তিনি দেশটির বিভিন্ন মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন এবং কুয়ালালামপুর ত্যাগের মভপড় আগে মালয়েশিয়া সরকারের সঙ্গে বৈঠক করেন।

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বৈধতা দেওয়ার ঘোষণা সম্পর্কে জানতে চাইলে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে ঢাকাটাইমস। তারা জানান, সংবাদটি দেখেছেন তারা। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কোনো তথ্য তাদের হাতে নেই।

বিভিন্ন দেশের ২০ থেকে ৩০ লাখ অবৈধ অভিবাসী মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছেন বলে মনে করছে অভিবাসন খাত নিয়ে কাজ করা এশিয়ার ২০টি দেশের আঞ্চলিক সংগঠন ক্যারাম এশিয়া। তবে বাংলাদেশের অবৈধ অভিবাসীর সংখ্যা সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই। অভিবাসন খাত নিয়ে কাজ করছে দেশের এমন উন্নয়ন সংস্থা ও ব্যবসায়ীদের মতে, মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসীর সংখ্যা দেড় লাখ থেকে দুই লাখ হবে।

দুরন্ত/১৩নভেম্বর/পিডি