আরেকটি মামলায় মামুনল হক তিনদিনের রিমান্ডে

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:

হেফাজতের হরতালে নারায়ণগঞ্জে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতার আরেকটি মামলায় মামুনুল হককে তিনদিনের রিমান্ড দিয়েছে আদালত।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান জানান, হরতালে নাশকতার একটি মামলায় মামুনুল হককে গ্রেফতার দেখিয়ে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করে পিবিআই। আদালত শুনানি শেষে তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে।

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) আবেদনের প্রেক্ষিতে সোমবার বিকেলে মুখ্য বিচারিক হাকিম ফারহানা ফেরদৌসের আদালত এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআইয়ের পুলিশ পরিদর্শক আরিফুর রহমান জানান, এক আসামি তার জবানবন্দিতে হেফাজতে ইসলামের সাবেক কমিটির যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হকসহ বেশ কয়েকজন কেন্দ্রীয় নেতার নাম প্রকাশ করেন। তারা জানান, হরতালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে জ্বালাও-পোড়াওসহ গাড়ি ভাঙচুরের নির্দেশ দেন মামুনুল হক। তাই তাকে মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে রিমান্ড আবেদন করা হয়।

এর আগে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে গত ২৬ মার্চ রাজধানীর বায়তুল মোকাররমে হেফাজতের কর্মসূচিতে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। ওই সংঘর্ষের জেরে সহিংসতা হয় নারায়ণগঞ্জ, চট্টগ্রামের হাটহাজারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হবিগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জসহ আরও কয়েক জেলায়।

পরে ৩ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে একটি রিসোর্টে এক নারীসহ স্থানীয়দের হাতে অবরুদ্ধ হন মামুনুল। এরপর ১৮ এপ্রিল মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা থেকে মামুনুলকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগ। গত ১২ মে পাঁচ মামলায় মামুনুলকে ১৫ দিনের রিমান্ডে পায় পুলিশ।