‘করোনা লুকিয়ে রাখার বিষয় নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক:

করোনাভাইরাস লুকিয়ে রাখার মতো কোনো অসুখ নয়। আমি মাত্র দুদিন আগেই করোনা মুক্ত হয়েছি। সব নিয়ম মানার পরও আমি করোনা আক্রান্ত হয়েছি। সুতরাং আপনারা সকলেই সাবধানে থাকবেন বলে মন্তব্য করেন বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এবং সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা।

বুধবার (২৬ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১১টায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্লাজমা দেওয়ার সময় তিনি এ মন্তব্য করেন। ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বলেন, আমি যখন আক্রান্ত হয়েছি, সঙ্গে সঙ্গে আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছি।

‘সাংবাদিক ভাইয়েরা প্রত্যেকে আমার আক্রান্তের নিউজ করেছে। নিউজ করেছে কারণ, করোনা কোনো লুকিয়ে রাখার অসুখ নয়। সুতরাং আমি চাই করোনা আক্রান্ত হলে একটা মানুষ যেন দ্বিধা দ্বন্দ্ব না করে, এখানে লজ্জার কিছুই নাই। করোনা আক্রান্ত হলে গোপন করবেন না।’

তিনি আরও বলেন, আমাদের সরকারি ব্যবস্থাপনা একেবারেই ভেঙে পড়েছে, এটা নিয়ে আর কথা নাইবা বলি। আমরা যদি পরস্পরের পাশে না দাঁড়াই তাহলে আমাদের কেউ বাঁচাতে পারবে না। আমার করোনা ভাইরাসের অভিজ্ঞতা নিয়ে আমি লিখবো, আজকে আমি প্লাজমা দিতে এসেছি।

স্যার (ডা. জাফরুল্লাহ) বললেন, এই রক্ত দিয়ে ৫ জন করোনা রোগী উপকৃত হবেন। এটাই আমার অনেক বড় পাওয়া যে ৫ জনকে সামান্য এক ব্যাগ রক্ত দিয়ে উপকার করতে পারবো। আমি আশা করবো, যারা করোনামুক্ত হয়েছেন, তারা প্লাজমা দান করবেন। কারণ এটা অন্য ৫ জনকে রোগীকে সাহায্য করবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা এবং ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রেস উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলমসহ কেন্দ্রের চিকিৎসক এবং কর্মকর্তারা।

সোমবার (২৪ আগস্ট) ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা করোনা ভাইরাস মুক্ত হন। এর আগে গত ১২ আগস্ট দুপুরে রুমিন ফারহানা তার নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে করোনা পজিটিভ শনাক্ত হওয়ার খবর জানিয়েছিলেন।