কুড়িগ্রামে অসচ্ছ্বল মাকে ঘর তুলে দিলেন ইঞ্জিনিয়ার মুরাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ি উপজেলায় হরিজন সম্প্রদায়ের এক অসচ্ছ্বল মাকে ঘর তুলে দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশনের সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান মুরাদ। বৃহস্পতিবার ঘরের কাজ শেষ হলে ঘরটি হরিজন নেপাল চন্দ্র রায়ের স্ত্রী মিনা রাণীর হাতে তুলে দেন।

জানা যায়, জেলার ফুলবাড়ি উপজেলার সদর ইউনিয়নের হরিজন সম্প্রদায়ের বাস। দারিদ্র্রপ্রবণ অঞ্চলে এ সম্প্রদায়ের লোকজন করোনাকালীন সময় ও বন্যায় আরও হতদরিদ্র হয়ে পরে।

স্থানীয় হরিজন সম্প্রদায়ের নেপাল চন্দ্র রায় ও তার স্ত্রী মিনা রায়ের বসবাস করা একমাত্র ঘরটির চালাও নষ্ট হয়ে যায়। উপজেলার সন্তান কামরুজ্জামান মুরাদ নেপাল চন্দ্র রায়ের একটি নতুন ঘর করে দেন।

মিনা রাণী বলেন, আমার একমাত্র ঘরটির চালাসহ নষ্ট হয়ে গেছে। ইঞ্জিনিয়ার মুরাদ আমাকে একটি নতুন ঘর করে দিয়েছেন।

ইঞ্জিনিয়ার কামরুজ্জামান মুরাদ বলেন,মুজিববর্ষে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি সম্মান ও মাগফিরাত কামনায় গরিব ও সহায় সম্বলহীন মায়ের জন্য জন্য একটি প্রকল্প চিন্তা করেছিলাম। এ প্রকল্পের আওতায় ইতিমধ্যে একজন মায়ের হাতে ঘর তুলে দিয়েছি। পর্যায়ক্রমে ফুলবাড়ি উপজেলার প্রতিটা ইউনিয়ন এবং কুড়িগ্রাম সদর ও রাজারহাট উপজেলার এ প্রকল্পের আওতায় অসহায় মা এর জন্য ঘর তুলে দিব।