ছাতকে নামাযরত অবস্থায় মুসল্লি তৈয়ব আলীর মৃত্যু

ছাতক প্রতিনিধি:

সুনামগঞ্জের ছাতকে নামাযরত অবস্থায় তৈয়ব আলী (৮০) নামের এক মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। (ইন্না লিল্লাহী ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তিনি উপজেলার ছৈলা আফজলাবাদ-ইউনিয়নের শ্যামনগর পশ্চিম পাড়া গ্রামের মৃত সিদ্দেক আলীর পুত্র। বুধবার গ্রামের পশ্চিম পাড়া জামে মসজিদে মাগরিবের নামাযরত অবস্থায় তিনি মত্যুবরণ করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোবিন্দগঞ্জ নতূনবাজারের নাজমুল ডেকোরেটার্সের সত্ত্বাধিকারী,
শ্যামনগর গ্রামের প্রবীন মুরব্বি তৈয়ব আলী প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার মাগরিবের নামায আদায় করার জন্য গ্রামের পশ্চিম পাড়া জামে মসজিদে যান। ইমামের পিছনে অন্যান্য মুসল্লিদের সাথে তিনি মাগরিবের নামাযে অংশ নিয়ে প্রথম রাকাত শেষ করে দ্বিতীয় রাকাতে দু’সেজদার মধ্যখানে তিনি হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান।

এসময় কাছের দু’একজন মুসল্লি নামায ভেঙ্গে দিয়ে তাকে উঠানোর চেষ্টা করেন কিন্তু ততক্ষনে তিনি এ পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন না ফেরার দেশে। এ মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মুত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৪ পুত্র ও ৩ কন্যাসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন।

গ্রামের দ্বীনুল ইসলাম শ্যামল সত্যতা স্বীকার করে বলেন, লোকটি নামাযি ও অত্যন্ত ভাল মানুষ ছিলেন। এ জন্য নামাযরত অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে শ্যামনগর পশ্চিম পাড়া জামে মসজিদের ইমাম, কালারুকা চানপুর গ্রামের মাওলানা নাজমুল হক জানান, মাগরিবের জামাতে নামাযর অবস্থায় ওই মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। তৈয়ব আলী মসজিদে পাঁচ ওয়াক্ত নামাযের অন্যতম মুসল্লি ছিলেন বলে তিনি জানিয়েছেন।