ছুটিতে যেতে বাধ্য হলেন ডাক অধিদফতরের ডিজি

বিশেষ প্রতিবেদক:

প্রাথমিক তদন্তে দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়ায় ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক (চলতি দায়িত্ব) সুধাংশু শেখর ভদ্রকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।

সোমবার (৯ নভেম্বর) ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ থেকে জারি করা এক আদেশে এ তথ্য পাওয়া গেছে। আর এই আদেশে আজ বুধবার (১১ নভেম্বর) থেকে কার্যকর হবে।

গ্রামের জনসাধারণকে ডিজিটাল সেবা দেয়ার কথা বলে শত শত কোটি টাকা লোপাটের অভিযোগ উঠেছে ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক সুধাংশু শেখরের বিরুদ্ধে। কেনাকাটা থেকে শুরু করে ডিজিটাল পোস্ট সেন্টার স্থাপন- সব খানে রেখেছেন অনিয়মের স্বাক্ষর।

শুধু তাই নয়, বহু ডিজিটাল সেন্টারের অস্তিত্বই নেই, তবুও নাম ভাঙিয়ে তুলে নিয়েছেন ৫৪০ কোটি ৯৪ লাখ টাকা। এ সবই উঠে এসেছে ডাক বিভাগের পক্ষ থেকে গঠিত তদন্ত রিপোর্টে। এ নিয়ে তাকে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তলবও করেছে।

ছুটিতে পাঠানোর আদেশে বলা হয়, ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক (চলতি দায়িত্ব) সুধাংশু শেখর ভদ্রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগের প্রাথমিক তদন্তে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ‘সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপীল) বিধিমালা, ২০১৮’ এর বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহণের স্বার্থে বিধি-১২ এর বিধান অনুসারে আগামী ১১ নভেম্বর থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বাধ্যতামূলক ছুটিতে যাওয়ার নির্দেশ প্রদান করা হলো।

গত ২৩ সেপ্টেম্বর ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি তাকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়ার সুপারিশ করেছিল।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের একজন কর্মকর্তা জানান, এরপর থেকে ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক ছুটিতে ছিলেন। তার সেই ছুটি মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) শেষ হচ্ছে। এখন তাকে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য ছুটিতে পাঠানো হয়েছে।