জাবির ইয়াবা নিয়ে কিশোর গ্যাংয়ের মারামারি!

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সংবাদদাতা:

ইয়াবা ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দুই কিশোর গ্যাংয়ের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন আমবাগান এলাকায় এ ঘটনা ঘটে বলে জানান স্থানীয়রা। এ সময় রডের আঘাতে এক জাবি শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, দুই গ্রুপের সদস্যরা ইয়াবা ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত। তারা হচ্ছেন রাহাত, অমি, তূর্য, সাগর, ইমরান, পিয়াস, লিকন, সজিব, মিরাজ, রুদ্র। তারা সবাই জাবি স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে মিরাজ বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল এন্ড কলেজের এক শিক্ষক ও রুদ্র এক কর্মচারীর ছেলে।

রুদ্রর বাবা বলেন, আমার ছেলেকে রাহাতরা তাদের সঙ্গে নেওয়ার চেষ্টা করছিল। তাই আমি আমার ছেলেকে তাদেরকে সঙ্গে নিতে মানা করি। আমি বুঝতে পারছিলাম আমার ছেলে তাদের সাথে থাকছে।

মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে রুদ্রকে আমি বাসায় না পেয়ে রাহাত (গ্যাংদের) অফিসে যাই। গিয়ে রুদ্রকে সেখান থেকে নিয়ে আসি। আর এ ঘটনায় রাহাতরা ভাবে মিরাজ আমাকে এ বিষয়টি বলেছে। তাই তারা সকালে মিরাজকে ডাকে।

এদিকে আহত বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের ৪৪ ব্যাচের শিক্ষার্থী মাহফুজ বলেন, মিরাজের ভাই আমার বন্ধু। সে আমাকে বলে এলাকার কিছু ছেলে নাকি তার ভাই মিরাজকে মারতে চায়। তাই সকালে আমি তাদের মধ্যে সমাধান করতে গেলে কিছু বলার আগেই রাহাত আমাকে রড দিয়ে মারে। এতে আমার হাত গুরুতর আহত হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মেহেদী ইকবাল বলেন, এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরের দুই কিশোর গ্রুপের মধ্যেকার ঘটনা। কিন্তু এখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী অনাকাঙ্খিতভাবে যুক্ত হয়ে গেছে। আমাদের শিক্ষার্থীকে মারধর করলে পরে আরও কিছু শিক্ষার্থী এখানে চলে আসে।