ড্রিম ক্যারিয়ার ক্লাব!

অধ্যাপক মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম:

স্বপ্ন দেখা ও স্বপ্নকে বাস্তবে রূপদানের লক্ষ্যে শিক্ষার্থী ও দেশের শিক্ষিত বেকারদেরকে mentally support এবং skill development এর বিষয়ে উদ্যোগী করে তুলতে ড্রিম ক্যারিয়ার ক্লাব গঠন করা হয়।

ক্লাবের সদস্যরা পরষ্পর যোগাযোগের মাধ্যমে বিভিন্ন ইভেন্ট করে নিজেদের ক্যারিয়ার বিল্ডআপের কার্যকরী পদক্ষেপ নেয়াই এই ক্লাবের মূল উদ্দেশ্য। তারই ধারাবাহিকতায় গত ৬/১০/২০ তারিখ রাত সাড়ে ৮ টায় ক্লাবের কর্মকৌশল নির্ধারণ করতে এক ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে আনন্দ মোহন কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মিশাক আল বোরহান ক্লাবের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করে।সে সকলের সহযোগিতার মাধ্যমে ক্লাবকে এগিয়ে নেয়ার আহবান জানায়।

চট্টগ্রাম সিটি কলেজের সহকারী অধ্যাপক জনাব মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন ক্লাবের পূর্ণাঙ্গ পরিকল্পনা প্রণয়নের পরামর্শ দেন।তিনি এই ক্লাবকে সারাদেশের শিক্ষার্থী ও বেকারদের মাঝে অনুপ্রেরণার আশ্রয়স্হল হিসেবে পরিণত করার আহবান জানান।

” সফলতার আড়ালের গল্প ” -এর প্রতিষ্ঠাতা ও সঞ্চালক এবং দৈনিক তাজাখবর ডট কম- এর বার্তা সম্পাদক জনাব নজরুল বিন মাহমুদুল তার অনুপ্রেরণা মূলক বক্তব্য প্রদান করেন।
রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র জনাব শিহাব উদ্দিন নিজের লালিত স্বপ্নকে এই প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে কিভাবে সফল করা যায় তার পরামর্শ প্রদান করেন।

গোপালগঞ্জ বিঞ্জান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র বাপ্পারাজ ক্লাবের সাথে যুক্ত থাকার অভিপ্রায় ব্যক্ত করে।
এছাড়াও ক্লাবের সদস্য রাকিবুল ইসলাম ক্লাবের সাথে থেকে নিজের ক্যারিয়ার উন্নয়নের আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা প্রফেসর মোহাম্মদ ফখরুল ইসলাম ক্লাবে যুক্ত থেকে লিডারশীপ, গ্রুপ ওয়ার্ক ও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে বিশেষ গুণগুলো অর্জনের পরামর্শ দেন।

তিনি ক্লাবের সদস্যদেরকে তাদের নিজের জীবনের লক্ষ্য নির্ধারণ এবং তাদের সময়কে তাদের জীবনের ওপর ইনভেস্ট করা, কোন কিছুই অসম্ভব নয় এই ধারণা পোষণ করা,ইনশাআল্লাহ অবশ্যই আমি পারব এই মানসিকতা পোষণ করা, নেতিবাচক চিন্তা নয় সবসময় ইতিবাচক বা পজিটিভ চিন্তা করা,skill development এর জন্য Information এবং Networking link প্রতিষ্ঠার পরামর্শ দেন।

“পথ খুঁজলে পথই পথিককে পথ দেখিয়ে নেয় ” পরিশেষে এই পরামর্শ দিয়ে সকলকে ক্লাবের সাথে যুক্ত থাকার আহবান জানিয়ে তিনি তাঁর বক্তব্য শেষ করেন।

আসুন সবাই মিলে বেকারমুক্ত সোনার বাংলা গঠনে এগিয়ে আসি।