নামাজে হাদিসের শিক্ষা

দুরন্ত ডেস্ক:

অজুতে হযরত মুহাম্মদ (স:) এর বিভিন্ন দিক নির্দেশনা রয়েছে। আর মসজিদে কাঠের মিম্বরে বসার দিক নির্দেশনা রয়েছে। যা আলোকপাত করা হলো।

অজু অবস্থায় মসজিদে অবস্থান

আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, আল্লাহর রাসুল (সা.) বলেছেন, তোমাদের কেউ মসজিদে নামাজের পর অজু ভেঙে যাওয়ার আগ পর্যন্ত যেখানে নামাজ আদায় করেছে সেখানে যতক্ষণ বসে থাকে ততক্ষণ ফেরেশতারা তার জন্য দোয়া করতে থাকেন। তাঁরা বলেন, হে আল্লাহ! তাকে ক্ষমা করুন। হে আল্লাহ! তার ওপর রহম করুন। (বুখারি, হাদিস : ৪৪৫)

নবীজির কাঠের মিম্বর

সাহল (রা.) বলেন, আল্লাহর রাসুল (সা.) এক নারীর কাছে লোক পাঠিয়ে বলেন, তুমি তোমার গোলাম কাঠমিস্ত্রিকে বলো, সে যেন আমার জন্য কাঠের মিম্বর বানিয়ে দেয়, যাতে আমি বসতে পারি। (বুখারি, হাদিস : ৪৪৮)

মসজিদ নির্মাণের ফজিলত

ওবাইদুল্লাহ খাওলানি (রহ.) থেকে বর্ণিত, তিনি ওসমান ইবনে আফফান (রা.)-কে বলতে শুনেছেন, তিনি যখন মসজিদ-ই-নববী নির্মাণ করেছিলেন তখন লোকজনের মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বলেছিলেন, তোমরা আমার ওপর অনেক বাড়াবাড়ি করছ অথচ আমি আল্লাহর রাসুল (সা.)-কে বলতে শুনেছি, যে ব্যক্তি মসজিদ নির্মাণ করে, [বুকায়র (রহ.) বলেন, আমার মনে হয় বর্ণনাকারী আসিম (রহ.) তাঁর বর্ণনায় উল্লেখ করেছেন, আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের উদ্দেশ্যে] আল্লাহ তাআলা তার জন্য জান্নাতে অনুরূপ ঘর তৈরি করে দেবেন। (বুখারি, হাদিস : ৪৫০)