পাঁচ মাস পর আজ খুলছে কক্সবাজারের পর্যটন

কক্সবাজার সংবাদদাতা:

মহামারী করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে দীর্ঘ পাঁচ মাস বন্ধ থাকার পর কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতসহ বিনোদন কেন্দ্রগুলো আজ সোমবার (১৭ আগস্ট) থেকে সীমিত আকারে খুলে দেওয়া হচ্ছে।

এতে হোটেল-মোটেলসহ পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা খুশি হয়ে পর্যটকদের বরণে নানা প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

তবে প্রশাসনের সংশ্লিষ্টরা বলছেন, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় যে বা যারা স্বাস্থ্যবিধিসহ প্রশাসনিক নির্দেশনা অমান্য করবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে সমুদ্র সৈকতসহ কক্সবাজারের পর্যটন স্পটগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। এতে জেলার সাড়ে ৪ শতাধিক হোটেল-মোটেল, ৫ শতাধিক রেস্টুরেন্ট এবং ৫ হাজারের বেশি পর্যটন সংশ্লিষ্ট দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে।

স্থবির হয়ে পড়ে পুরো পর্যটন শিল্প। বেকার হয়ে পড়ে ১০ হাজারের ব্যবসায়ী ও কর্মকর্তা-কর্মচারী।

এ পরিস্থিতিতে গত ৫ আগস্ট ভার্চুয়াল প্লাটফরমে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান, সংস্থা ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে জেলা প্রশাসনের পর্যটন সেলের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে শর্ত সাপেক্ষে স্পটগুলো খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। এ জন্য বিভিন্ন পর্যটন খাতের জন্য ৬৫টি নির্দেশনা তৈরি করা হয়।

দীর্ঘ দিন ধরে বন্ধ থাকার পর বিনোদন কেন্দ্রগুলো খুলে দেওয়ার প্রশাসনিক সিদ্ধান্তে দারুণ খুশি পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। ইতিমধ্যে তারা নানা প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে।

আগত পর্যটকদের নিরাপত্তার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মানা ও প্রশাসনিক নির্দেশনা বাস্তবায়নে নানা উদ্যোগ নিয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ। অসুস্থ হয়েপড়া পর্যটকদের চিকিৎসা দেওয়ার জন্য ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, স্বাস্থ্যবিধি এবং প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে প্রশাসনের সংশ্লিষ্টরা মাঠে তৎপর থাকবেন।