বাঘায় বিট পুলিশিং কার্যক্রম অনুষ্ঠিত

বাঘা (রাজশাহী) প্রতিনিধি:

রাজশাহীর বাঘা উপজেলাতে পৌরসভা ও ইউনিয়নের জনসংখ্যা এবং অপরাধ প্রবণতা বিবেচনা করে অত্র থানার ২টি পৌরসভা ও ৭টি ইউনিয়নে মোট ১৩ টি বিট প্রবর্তন করে ১৩ টি বিট পুলিশিং অফিস স্থাপন করা হয়েছে। রবিবার (২৩আগস্ট) উপজেলার বাজুবাঘা ইউনিয়ন পরিষদে প্রথম বারের মত বিট পুলিশিং কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অফিসে এসআই শাহ আলম(০১৩১৯৩০৭৪৩৩) এএসআই সেলিম রেজার উপস্থিতিতে বিট পুলিশিং অনুষ্টিত হয়। বাঘা থানার মোট ১৩টি বিট অফিস স্থাপন করা হয়েছে। বাঘা থানার বিট অফিসগুলো ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভা কার্যালয়ে অবস্থিত বলে জানান বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম।

এসআই শাহ আলম বাঘা রিপোটার্স ক্লাবের সাংবাদিকদের জানান, কার্যক্রমের মাধ্যমে বিট অফিসারগণ বিট এলাকায় বসবাসরত জনসাধারণের কাছে থেকে আইনশৃঙ্খলা জনিত সমস্যার কথা শুনে এবং আইনগত সমাধান প্রদান করবেন।শুধু তাই নয় করণীয় ও বর্জনীয় সম্পর্কেও প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করছেন।

বিট পুলিশিং হলো পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌছানোর বলিষ্ঠ ও প্রকৃষ্ট হাতিয়ার। বিটসমূহে এসে অতি সহজেই সংশ্লিষ্ট বিটসমূহের অধিবাসীগণ মাদক,সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, ইভটিজিং, বাল্যবিবাহ, নারী ও শিশু নির্যাতন সহ যেকোনো অপরাধের কথা বলতে পারেন এবং তৎক্ষনাত প্রয়োজনীয় আইনগত সেবা নিতে পারবেন। এর মাধ্যমে পুলিশি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছানো হচ্ছে।

বিট পুলিশিং সম্পর্কে বাজুবাঘা ইউনিয়নের সচিব জিয়াউর রহমান বলেন,সর্বস্তরের জনগণের জন্য এটি খুব ভালো একটি উদ্যোগ।পুলিশ সদস্যরাই সেবা নিয়ে যাবেন মানুষের কাছে,এতে করে সাধারণ জনগণ তাদের সমস্যাগুলোর দ্রুত সমাধান পাবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন আঃমজিত চঞ্চল ও সকল ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধি সহ আরও অনেকে।

এবিষয়ে বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) নজরুল ইসলাম বলেন, রবিবার প্রথম বাজুবাঘা ইউনিয়নে বিট পুলিশিং অনুষ্টিত হয়েছে। বাঘা থানায় , মাদক দ্রব্যসহ সন্ত্রাসী কর্মকান্ড প্রতিরোধ ও জননিরাপত্তা নিশ্চিত করা ছাড়াও বিট অফিসের মাধ্যমে দাম্পত্য বিরোধ ও সামাজিক বিবাদ নিষ্পত্তিতে বাঘা থানা পুলিশ সদস্যরা এক যোগে কাজ করে যাবে।