মদ না পেয়ে স্যানিটাইজার খেয়ে ৯জনের মৃত্যু

দুরন্ত ডেস্ক:

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণ রোধে ভারতের অন্ধ্রপ্রদেশের প্রকাশম জেলায় গত দশ দিন ধরে লকডাউন চলছে। ফলে এ জেলার সব মদের দোকান বন্ধ হয়ে গেছে। এতে বিপাকে পড়েছেন অধিকাংশ মদ্যপায়ী।

দীর্ঘ ১০ দিন মদ না পেয়ে বিকল্প হিসেবে হ্যান্ড স্যানিটাইজার পান করার সিদ্ধান্ত নেন কয়েকজন মদ্যপায়ী। যেই ভাবা সেই কাজ। নয়জন মদ্যপায়ী একসঙ্গে হ্যান্ডস্যানিটাইজার পান করেন।

আর এতেই ৯ জনের মৃত্যু হয়। সর্বশেষ গত দুই দিন দুইজন মারা গেছেন। ওই ঘটনায় এখন পর্যন্ত আরও ২০ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বুধবার রাতে একদল মদ্যপায়ী মদ না পেয়ে হ্যান্ডস্যানিটাইজার পান করেন। পরে সবাই অসুস্থ হয়ে গেলে তাদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এই ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৯ জন মারা গেছেন। মৃতদের মধ্যে তিনজন ভিক্ষুক ও বাকি ছয়জন বস্তিবাসী।

প্রকাশম জেলার পুলিশ সুপার সিদ্ধার্থ কৌশল বলেন, জেলায় লকডাউন চলছে। তাই মদ পাওয়া যাচ্ছে না। ফলে বিকল্প হিসেবে স্যানিটাইজার পান করেন তারা। স্যানিটাইজার পান করার পর থেকে তাদের শরীর মারাত্মক ভাবে খারাপ হয়ে যায়।

এদিকে এ ঘটনায় স্থানীয় দোকান থেকে স্যানিটাইজার জব্দ করে সেগুলো পরীক্ষার জন্য ল্যাবে নেয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করছে।

তবে মৃতদের স্বজনরা জানান, চোলাইয়ের সঙ্গে স্যানিটাইজার মিশিয়ে পান করেছিলেন মৃত মদ্যপায়ীরা। পান করার পরপরই তারা অসুস্থ্য হয়ে পড়েন।