মেসির বিষয় শেষ, বার্তামেউ পড়েছেন মহাবিপদে!

দুরন্ত ডেস্ক:

লিওনেল মেসি বার্সেলোনা ছেড়ে চলে গেলে ক্লাবটির প্রেসিডেন্ট জোসেফ মারিয়া বার্তামেউ জেলে যেতে পারতেন, এমন একটি খবর প্রকাশ করেছিল স্প্যানিশ মিডিয়াগুলো।

অনেক ঝক্কি ঝামেলা করে মেসিকে আটকাতে পেরেছেন বার্তামেউ। তবে নিজেকে বাঁচাতে পারবেন কিনা তা অনিশ্চিত!

আর্জেন্টিনীয় মহাতারকা বার্সেলোনা পরিচালনা নিয়ে বেশ কিছু প্রশ্ন তুলেছিলেন। এই প্রশ্নগুলোর মাধ্যমেই বার্তামেউকে এখন কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হচ্ছে।

গোল ডটকমকে প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জর্ডি ফারে বলেছেন, মেসির দাবিগুলোর সঙ্গে একমত হয়েই তারা সংস্কারের আওয়াজ তুলেছেন।

ফারের উদ্যোগেই বার্তোমেউয়ের বিরুদ্ধে অনাস্থা ভোট আনার অভিযান শুরু হয়েছে। তার জন্য সই সংগ্রহও শুরু হয়ে গিয়েছে। যাতে অবিলম্বে বার্তোমেউকে সরিয়ে দেওয়া যায়। যদি তারা সফল হন, এ বছরের শেষেই নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রক্রিয়া গতি পাবে।

ফারে বলেছেন, ‘মেসির বক্তব্য ভালো করে শোনা দরকার। মেসি পরিষ্কার বলেছে, বার্সাকে নিয়ে তার কোনো উচ্চাশা নেই। ভালো করার তাগিদ নেই। ভাবনা নেই। একই সঙ্গে ক্লাবের শীর্ষ কর্তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা বলার অভিযোগ করেছে। বার্সেলোনার আর্থিক পরিস্থিতিও ভয়ঙ্কর বিপর্যের মুখে দাঁড়িয়ে আছে।’

ফারের মন্তব্য থেকেই পরিষ্কার, মেসির বার্সেলোনা ছাড়ার ইচ্ছাপ্রকাশ এবং তার পরে বার্তোমেউয়ের বিরুদ্ধে মুখ খোলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি অগ্নিগর্ভ হতে শুরু করেছে। এসবের মধ্যেই গত সোমবার থেকে অনুশীলনে নেমে পড়েছেন মেসি। শুধু তাই নয়, বৃহস্পতিবার ফুটবলারদের ছুটি দিয়েছিলেন বার্সার নতুন ম্যানেজার রোনাল্ড কোমান। কিন্তু বিশ্রাম না নিয়ে মেসি একাই অনুশীলনে ডুবে থাকেন। সবকিছু স্বাভাবিক মনে হলেও বার্তামেউয়ের সামনে যে কঠিন ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে, তা বলে দিতে হয় না।