‘যুব ও ক্রীড়ার উন্নয়নে বাংলাদেশ নেপালের সাথে একযোগে কাজ করবে’

বিশেষ প্রতিবেদক:

যুব ও ক্রীড়ার উন্নয়নে বাংলাদেশ নেপালের সাথে একযোগে কাজ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো: জাহিদ আহসান রাসেল। তিনি আজ বুধবার সকাল ১১ টায় “International Youth Day” উপলক্ষে নেপাল সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের অধীন ন্যাশনাল ইয়ুথ কাউন্সিল আয়োজিত ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন নেপাল সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা অলি সভাপতিত্ব করেন নেপাল সরকারের মাননীয় যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী জগত বাহাদুর সুনার ।

বাংলাদেশ নেপালের সম্পর্ক ঐতিহাসিক উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ নেপালের সম্পর্ক পারস্পরিক আস্হা, বিশ্বাস ও সহযোগিতার ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠিত। মহান মুক্তিযুদ্ধে নেপালের অবদান বাংলাদেশ কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করে। প্রতিবছর বাংলাদেশ হতে প্রচুর পর্যটক নেপাল ভ্রমন করে থাকে। অনেক নেপালি শিক্ষার্থী বাংলাদেশে পড়াশোনা করতে আসে। দুই দেশের মধ্যেকার এই ভ্রাতৃত্বপূর্ন সম্পককে আমরা আরো জোরদার করতে চাই। যুব ও ক্রীড়ার উন্নয়নে দুই দেশের মধ্যে যুব বিনিময় কার্যক্রম, যুব নেটওয়ার্ক তৈরি, সাংস্কৃতিক বিনিময়সহ নানা কর্মসূচি গ্রহন করা যেতে পারে।

এ সময়ে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী যুব উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে বলেন, ২০১৭ সালে বাংলাদেশ যুবদের জন্য একটি আধুনিক ও যুগোপযোগী জাতীয় যুব নীতি প্রণয়ন করেছে। এছাড়া UNFPA এর কারিগরি সহায়তায় জাতীয় যুব উন্নয়ন সূচক চূড়ান্ত হয়েছে এবং ন্যাশনাল ইয়ুথ কাউন্সিলের গঠনের শেষ পর্যায়ে রয়েছি আমরা। দেশি বিদেশি যুবকদের ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে প্রশিক্ষন দেবার লক্ষ্যে একটি ভার্চুয়াল আন্তর্জাতিক ট্রেনিং সেন্টার নির্মাণ করতে যাচ্ছি। যেখান থেকে নেপালসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের যুবকরা অনলাইনে আধুনিক ও উন্নত প্রশিক্ষন গ্রহন করতে পারবে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০২০ সালটি বাংলাদেশের তরুণদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারন আমরা আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপন করছি একই সাথে বছরব্যাপী সারা বিশ্বের তরুণদের অংশগ্রহনে ঢাকা ওআইসি ইয়ুথ ক্যাপিটাল ২০২০ এর নানা বর্নাঢ্য কর্মসূচি উদযাপন করবে।

প্রতিবছর নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে ১২ আগস্ট আন্তর্জাতিক যুব দিবস পালিত হয়ে আসছে। এবার যুব দিবসের মূল প্রতিপাদ্য, Youth engagement for global action.
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের যুব ও ক্রীড়া সচিব মোঃ আখতার হোসেন, নেপালের যুব ও ক্রীড়া সচিব রাম প্রসাদ থাপালিয়া, চীন, ভারত, শ্রীলংকাসহ বিভিন্ন দেশের যুব প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

দুরন্ত/১২আগস্ট/পিডি

#