লাদাখের পরিস্থিতি ‘অত্যন্ত খারাপ’

দুরন্ত ডেস্ক:

ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বলেছেন, লাদাখের উত্তেজনা নিয়ে বুধবার মস্কোয় বৈঠকে বসছেন ভারত ও চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তার দুদিন আগে পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার অবস্থা ‘অত্যন্ত খারাপ’।

সীমান্তে এই উত্তেজনার প্রভাব নয়াদিল্লি-বেইজিং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের ওপর অবধারিতভাবে পড়বে বলেও মনে করেন জয়শঙ্কর। সমস্যার সমাধানে এবং সম্পর্কের উন্নতিতে রাজনৈতিক স্তরে গভীরভাবে আলোচনা এবং সীমান্তে উত্তেজনা কমানো দরকার বলেও মনে করেন তিনি। সূত্র : আনন্দবাজার।

বৃহস্পতিবার মস্কোয় বসছে সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশনের সম্মেলন। সেখানে আট দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা আলোচনা করবেন। তার ফাঁকেই জয়শঙ্করের সঙ্গে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই-র বৈঠক হওয়ার কথা।

তার আগে সোমবার নয়াদিল্লিতে একটি সংবাদমাধ্যম আয়োজিত আলোচনা চক্রে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সীমান্তের উত্তেজনাকে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক থেকে আলাদা করা যায় না।

পর্যবেক্ষকদের মতে, মস্কোয় নয়াদিল্লি-বেইজিং আলোচনার আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এই মন্তব্য অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। তাদের ব্যাখ্যা, মস্কোতেও যে দুপক্ষের আলোচনার মূল ইস্যু হতে চলেছে পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার উত্তেজনা, সেটা আগেভাগেই চীনকে বুঝিয়ে দিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

গত ৪ মে থেকে পূর্ব লাদাখের প্যাংগং, গালওয়ানসহ প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় বিপুল সেনা মোতায়েন করে চীন। তার জের ১৫ জুন গালওয়ান উপত্যকায় সেনা সংঘর্ষে ভারতের ২০ জনের মৃত্যু হয়।