সংস্কৃতি চর্চাকে বেগবান করতে সারাদেশে সাংস্কৃতিক উপকরণ সরবরাহ করা হবে

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি:

সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, সংস্কৃতি চর্চার অন্যতম প্রধান উপকরণ হচ্ছে হারমোনিয়াম, তবলা-সহ অন্যান্য বাদ্যযন্ত্র। সারাদেশের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনকে এসব উপকরণ সরবরাহের মাধ্যমে সংস্কৃতি চর্চাকে আরো বেগবান করা হবে। দেশব্যাপী সাংস্কৃতিক সরঞ্জাম ও উপকরণ সুষ্ঠুভাবে সরবরাহ ও বিতরণের লক্ষ্যে এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প প্রণয়ন করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী গতকাল দুপুরে গোপালগঞ্জ সার্কিট হাউজে জেলা প্রশাসন ও জেলা শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত স্থানীয় সুধীজন ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি বলেন, জেলা শিল্পকলা একাডেমির বিদ্যমান জনবল সংকট নিরসনে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে জনবল নিয়োগের প্রক্রিয়া চলছে। শীঘ্রই এ সংক্রান্ত অর্থ মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পাওয়া যাবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

টাকার চেয়ে স্বীকৃতি মুখ্য উল্লেখ করে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনাকালীন সময়ে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে এ পর্যন্ত ১২ হাজারের অধিক কর্মহীন সংস্কৃতিসেবীকে অনুদান প্রদান করা হয়েছে। এর মাধ্যমে অনুদানপ্রাপ্ত শিল্পী ও সংস্কৃতিসেবীদের রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি মিলছে বলেও তিনি জানান।

গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলী খান।

প্রতিমন্ত্রী এর পূর্বে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর সমাধিসৌধে শ্রদ্ধার্ঘ্য অর্পণ করেন এবং বিশেষ মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন। তাছাড়া তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর পৈত্রিক বাড়ির প্রত্নতাত্ত্বিক সংরক্ষণ কাজ পরিদর্শন করেন।