সন্ধ্যার পর জগন্নাথ ক্যাম্পাসে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক:

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) ক্যাম্পাসে সন্ধ্যা ছয়টার পরে ছাত্রছাত্রীসহ জনসাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে কোনো নোটিশ ছাড়াই প্রায় এক সপ্তাহ ধরে ক্যাম্পাসে এ নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন করতে দেখা গেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকে দায়িত্বরত নিরাপত্তাকর্মীরা জানান, প্রক্টর অফিস থেকে আমাদেরকে সন্ধ্যা ছয়টা থেকে সাড়ে ছয়টার মধ্যে সবাইকে ক্যাম্পাস থেকে চলে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এ সময় থেকে সকাল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও নিরাপত্তাকর্মী ছাড়া অন্য কাউকে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে নিষেধ করা হয়েছে।

ক্যাম্পাসে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন ক্যাম্পাসে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটার কারণে সরকারি নির্দেশে বিশ্ববিদ্যালয় সন্ধ্যা ৬টা থেকে সাড়ে ৬টার পর বন্ধ থাকবে। তবে সারাদিন লাইব্রেরিসহ ক্যাম্পাস খোলা থাকবে।’

‘প্রবেশ নিষেধে কোনো নোটিশ দেয়া হয়েছে কি-না’-এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘নোটিশ দেবে রেজিস্ট্রার দফতর। তবে এখনো দিয়েছে কি-না খোঁজ নেয়া হবে।’

এদিকে নোটিশ ছাড়া হঠাৎ করে ক্যাম্পাসে প্রবেশাধিকার বন্ধ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন শিক্ষার্থীরা। প্রতিদিন সন্ধ্যার পর দূর থেকে আসা শিক্ষার্থীদের হতাশা প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

এ বিষয়ে সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ১৪তম ব্যাচের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘করোনার ভেতর হলে থাকতে থাকতে আমরা বিরক্ত হয়ে পড়ি। সন্ধ্যার পর সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে আমরা ক্যাম্পাসে বন্ধুরা গল্প-গুজব করতাম। নোটিশ ছাড়াই হঠাৎ করে প্রবেশ নিষিদ্ধ করায় এ সুযোগও থাকছে না।’

বাংলা বিভাগের ১৩তম ব্যাচের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘করোনার প্রকোপ কম হওয়ায় অনেক শিক্ষার্থী ঢাকায় ফিরে আসছে। সন্ধ্যার পর তারা বন্ধুদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ করতে আসে। আমার জানা মতে, বন্ধ ক্যাম্পাসে প্রবেশ নিষেধাজ্ঞার সরকারি নির্দেশ শুধু জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতায় কলেজগুলোতে। তবে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় ছাড়া অন্য কোনো পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে কি-না আমার জানা নেই।’

দুরন্ত/৯অক্টোবর/পিডি