সাকিবের বিকেএসপিতে অনুশীলন শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নিষেধাজ্ঞা শেষে মাঠে ফেরার লক্ষ্য নিয়ে অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান প্রস্তুত করতে শনিবার থেকে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (বিকেএসপি) অনুশীলন শুরু করেছেন।

জুয়াড়ির তথ্য গোপন করায় গেল বছরের ২৯ অক্টোবর থেকে আইসিসি কর্তৃক এক বছরের নিষেধাজ্ঞায় আছেন সাকিব। আগামী ২৯ অক্টোবর সাকিবের এক বছরের নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হবে। নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত বিকেএসপিতেই অনুশীলন করবেন সাকিব।

বিকেএসপির জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান বলেন, ‘শনিবার থেকে অনুশীলন শুরু করেছেন সাকিব। কোচ সালাউদ্দিন ও নাজমুল আবেদিন ফাহিম তার অনুশীলন দেখ-ভাল করছেন।’

তিনি আরও বলেন, ‘এক সপ্তাহ ফিটনেস ট্রেনিং শেষে সাকিব স্কিল ট্রেনিং শুরু করবেন। নিষেধাজ্ঞা শেষ হবার আগ পর্যন্ত সাকিব এখানে দু’মাস অবস্থান করবেন। সে ভিআইপি রেষ্ট হাউসে অবস্থান করবেন।’

দেশে ফেরার পর করোনা পরীক্ষা করিয়েছেন সাকিব। যার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। পরবর্তীতে সময়ক্ষেপণ না করে সরাসরি বিকেএসপিতে চলে আসেন সাকিব।

আশরাফুজ্জামান বলেন, ‘শুক্রবার বিকেলে সাকিব এখানে আসেন এবং পরে বিশ্রাম নেন। প্রতিষ্ঠানের সাবেক ছাত্র হিসেবে এখানে বেশ স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করছেন সাকিব।’
আসন্ন শ্রীলংকা সফরে তিন ম্যাচের সিরিজ দিয়ে জাতীয় দলের আবারো ফিরতে পারেন সাকিব।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন ইতোমধ্যে বলেছেন, নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হবার পর দ্বিতীয় টেস্ট থেকে খেলতে পারেন সাকিব।

আইসিসি থেকে নিষেধাজ্ঞা থাকায় সাকিবকে কোন ধরনের সহায়তা করতে পারবে না বিসিবি। কিন্তু নিষেধাজ্ঞা শেষ হবার আগে, নিজের ফিটনেস ও স্কিল ফিরে পেতে সাকিব যে উদ্যোগ নিয়েছেন, তাতে আনন্দিত তারা।

ইংল্যান্ডে গত বছরের বিশ্বকাপে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন সাকিব। আট ম্যাচে ৬০৬ রান করেন তিনি। বল হাতে ১১ উইকেট নেন সাকিব। ফলে বিশ্বকাপের মঞ্চে, প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে অন্তত ৫শ রান ও ১০ উইকেট নেয়া প্রথম ক্রিকেটার হন সাকিব।