স্থগিত ইউপি-সংসদীয় আসনের উপনির্বাচন নিয়ে সিদ্ধান্ত আগামী বুধবার

নিজস্ব প্রতিবেদক:

জাতীয় সংসদের শূন্য হওয়া আসন ও স্থগিত প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনসহ বেশ কয়েকটি নির্বাচনের ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে আগামী বুধবার (১৯ মে) বৈঠকে বসছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

এদিন বিকেল ৩টায় রাজধানীর নির্বাচন ভবনে বৈঠকটি হবে। বৈঠকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) নূরুল হুদা সভাপতিত্ব করবেন।

এর আগে ১১ মে অনুষ্ঠিত বৈঠকে করোনার মধ্যেই নির্বাচন আয়োজনের পক্ষে মত দেন নির্বাচন কমিশনাররা। তবে সেদিন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

বৈঠক শেষে ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ সাংবাদিকদের বলেছিলেন, করোনা পরিস্থিতি যতই খারাপ হোক না কেন, আমরা সব নির্বাচন চালিয়ে যাবো। আমাদের নির্বাচন করতেই হবে। লক্ষ্মীপুর-২ ও সিলেট-৩ আসনে সিইসির ক্ষমতার পরবর্তী ৯০ দিন পার হয়ে গেছে। কমিশন একমত হলে এসব নির্বাচন সম্পন্ন করে ফেলব।

তিনি আরো বলেছিলেন, ১৯ মে কমিশন সভা হবে। সভায় চার থেকে পাঁচটা এজেন্ডা রয়েছে। ৩৭১টি ইউপি নির্বাচনসহ যেসব নির্বাচন ১১ মার্চ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল সেগুলো নিয়ে ১৯ তারিখে সিদ্ধান্ত হবে।

ইসির উপ-সচিব (সংস্থাপন) মোহাম্মদ এনামুল হক স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত চিঠি থেকে জানা যায়, আসন্ন কমিশন সভার আলোচ্যসূচির মধ্যে রয়েছে- লক্ষ্মীপুর-২ আসনের স্থগিত নির্বাচন, ষষ্ঠ ধাপের ১১টি পৌরসভাসহ প্রথম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদের স্থগিত নির্বাচন, সিলেট-৩, ঢাকা-১৪ ও কুমিল্লা-৫ শূন্য আসনের নির্বাচন, ইউনিয়ন পরিষদের দ্বিতীয় ধাপের সাধারণ নির্বাচন এবং পৌরসভাসহ স্থানীয় সরকার পরিষদের অন্যান্য নির্বাচন। এছাড়া বৈঠকে লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌরসভা নির্বাচনের তদন্ত প্রতিবেদন উত্থাপন করা হবে।