২০১৯-২০ অর্থবছরে পণ্য ও সেবা রপ্তানি ৩৯৮০ কোটি ডলারের

বিশেষ প্রতিবেদক:

২০১৯-২০ অর্থবছরে পণ্য রপ্তানি হয়েছিল তিন হাজার ৩৬৭ কোটি ডলারের। এ তথ্য এরই মধ্যে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) প্রকাশ করেছে। নতুন করে সোমবার (১৭ আগস্ট) সেবা রপ্তানির তথ্য প্রকাশ করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

ইপিবির হালনাগাদ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত অর্থবছরে সেবা রপ্তানি হয়েছে ৬১৩ কোটি ১৯ লাখ ডলারের, যা আগের (২০১৮-১৯) অর্থবছরের চেয়ে ১৫.৩৬ শতাংশ কম।

সব মিলিয়ে গত অর্থবছরে রপ্তানির পরিমাণ (পণ্য ও সেবা) দাঁড়িয়েছে তিন হাজার ৯৮০ কোটি ৬০ লাখ ডলারের। সেই হিসেবে আলোচ্য অর্থবছরে রপ্তানি কমেছে ১৫.৩৬ শতাংশ।

অন্যদিকে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রপ্তানি কমেছে ২৬.২৯ শতাংশ। আলোচ্য অর্থবছরে পণ্য ও সেবা মিলিয়ে মোট রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ছিল পাঁচ হাজার ৪০০ কোটি ডলারের।

মূলত গত মার্চ থেকে দেশে করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হওয়ার পর ধীরে ধীরে অর্থনীতির গতি কমতে থাকে। এপ্রিলে এসে তা মারাত্মক রূপ নেয়। তবে মে থেকে পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হতে থাকে।

এ কারণেই রপ্তানি ব্যাপকভাবে কমে গেছে। কিন্তু এখনো আমদানি-রপ্তানিতে স্বাভাবিক গতি ফেরেনি। কবে নাগাদ অর্থনীতি স্বাভাবিক হবে, তা এখনি অনুমান করা যাচ্ছে না।

তা সত্ত্বেও চলতি অর্থবছরে সরকার রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছে চার হাজার ৮০০ কোটি ডলার, যা গত অর্থবছরের চেয়ে প্রায় ২১ শতাংশ বেশি। করোনাভাইরাসের বর্তমান পরিস্থিতিতে এই লক্ষ্যমাত্রাকে অনেকেই মাত্রাতিরিক্ত মনে করলেও সরকার মনে করছে, এটি অর্জনযোগ্য। রপ্তানিকারকদেরও অনেকেই মনে করছেন, করোনা পরিস্থিতি থেকে দ্রুত বেরিয়ে আসতে পারলে এই লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব।

ইপিবির হিসাব অনুযায়ী, ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৮৫০ কোটি ডলারের লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে সেবা রপ্তানি হয়েছে ৬১৩ কোটি ১৯ লাখ ডলারের। আগের ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সেবা রপ্তানির পরিমাণ ছিল ৬৪৯ কোটি ২৭ লাখ ডলারের। গত অর্থবছরে রপ্তানি সেবা কমেছে ৫.৫৬ শতাংশ এবং লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কমেছে প্রায় ২৮ শতাংশ।

দুরন্ত/১৮আগস্ট/আইপি